শারহু মিআতি আমিল/সিমা'ইয়্যাহ/১ম অধ্যায়

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন

(الحروف الجار) আল-হুরুফুল জার

ওই সকল হরফ, শুধুমাত্র ইসিমের শুরুতে এসে, শেষে জর প্রদান করে। এবং এই সকল হরফ ১৭টি।

  1. (ب) বা। এটি ১০টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইলসাক। অর্থাৎ বাস্তবিক ভাবে বা রূপক অর্থে একটি বস্তুকে আরেকটি বস্তুর সাথে লাগানো। ।
    2. ইস্তি'আনাহ (সাহায্য অর্থে)।
    3. তা'লীল (কারণ বোঝাতে)।
    4. মুসাহাবাহ (সহকারে)।
    5. তা'দিয়াহ
    6. মুকাবালাহ (বিনিময় অর্থে)।
    7. কসম (শপথ অর্থে)।
    8. ইস্তি'তাফ (অনুগ্রহ প্রার্থনা অর্থে)।
    9. জরফিয়্যাহ (স্থান, কাল বা পাত্র বোঝাতে)।
    10. যিয়াদাহ। (অতিরিক্ত)
  2. (ل) লাম এটি ৫টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইখতিছাছ (বিশেষভাবে নির্ধারণ)।
    2. যিয়াদাহ (অতিরিক্ত)।
    3. তা'লীল
    4. কসম
    5. মু'আকাবাহ (প্রতিদান অর্থে)
  3. (مِن) মিন। এটি ৪টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইবতিদা'উল গায়াহ (স্থান বা কালের শুরু হবার স্থান বা সময় বোঝাতে)।
    2. তাব'য়ীয (অংশবিশেষ বোঝাতে)।
    3. তাবয়ীন (বর্ণনা বোঝাতে)
    4. যিয়াদাহ
  4. (اِلىٰ) ইলা। এটি ৪টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইনতিহা'উল গায়াহ (স্থান এর সমাপ্ত হবার স্থান বোঝাতে)
    2. মুসাহাবাহ
    3. পূর্ববর্তি অংশের হুকুম পরবর্তি অংশের হুকুমের অন্তর্ভুক্ত বোঝাতে। এর জন্য উভয় অংশ একজাতীয় হওয়া আবশ্যক।
    4. পূর্ববর্তি অংশের হুকুম পরবর্তি অংশের হুকুমের বহির্ভূত বোঝাতে। যদি উভয় অংশ একজাতীয় না হয়।
  5. (حَتّٰى) হাত্তা। এটি ৫টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইন্তিহা'উল গায়াহ ফিয-যামান (কোন কাল সমাপ্ত হবার সময় বোঝাতে)।
    2. ইন্তিহা'উল গায়াহ ফিল-মাকান (কোন স্থান সমাপ্ত হবার সময় বোঝাতে)।
    3. মুসাহাবাহ
    4. পূর্ববর্তি অংশের হুকুম পরবর্তি অংশের হুকুমের অন্তর্ভুক্ত বোঝাতে।
    5. পূর্ববর্তি অংশের হুকুম পরবর্তি অংশের হুকুমের বহির্ভূত বোঝাতে।
  6. (عَلٰى) 'আলা। এটি ২টি অর্থে ব্যবহৃত হয়
    1. ইস্তি'লা (উপরে বোঝাতে)
    2. জরফিয়্যাহ
  7. (عَن) 'আন। এটি ২টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. বু'দ (দূরবর্তি অর্থে)।
    2. মুজাওয়াযাত (অতিক্রম করা)
  8. (فِيْ) ফি। এটি দুটি অর্থে ব্যবহৃত হয়
    1. জরফিয়্যাহ
    2. ইস্তি'লা
  9. (كَ) কাফ। এটি দুটি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. তাশবীহ (সদৃশ্য অর্থে)।
    2. যিয়াদাহ
  10. (مُذ) মুয। এটি দুটি অর্থে ব্যবহৃত হয়
    1. ইবতিদা'উল গায়াহ ফিয-যামানিল মাযী (অতীতকালে কাজ শুরু হওয়া অর্থে)
    2. জামী'উল মুদ্দাহ (পূর্ণ সময় অর্থে)
  11. (مُنذُ) মুনযু। এটি 'মুয' এর মতই
  12. (رُبَّ) রুব্বা এটি ২টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. তাকলীল (স্বল্পতা অর্থে)
    2. কখনো কখনো জমীরুল মুবহামের মধ্যে প্রবেশ করে
  13. (و) ওয়াও। এটি ২টি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. কসম
    2. রুব্বা (তাকলীল)
  14. (ت) তা। এটি একটি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. কসম। (শুধু আল্লাহ শব্দের মধ্যে প্রবেশ করে।)
      বি: দ্র: কসমের জন্য জওয়াবুল কসম আবশ্যক। জওয়াবে কসম জুমলায়ে ইসমিয়্যা এবং মুছবাতাহ হলে শুরু করতে হবে انَّ/لام الابتداء দ্বারা। মুনফিয়্যাহ হলে শুরু করতে হবে مَا/لَا/اِن দ্বারা। জুমলায়ে ফি'লিয়্যাহ এবং মুছবাতাহ হলে শুরু করতে হবে لَقَد/لـَ দ্বারা। ফে'য়েলে মাজী মুনফিয়্যাহ হলে শুরু করতে হবে مَا দ্বারা। ফে'য়েলে মুজারি' মুনফিয়্যাহ হলে শুরু করতে হবে مَـا/لَا/لَن দ্বারা। কখনো কখনো জওয়াবুল কসম উহ্য থাকে। যদি কসমের আগে জওয়াবুল কসমের মত কোন বাক্য থাকে অথবা যদি কসম উক্ত বাক্যের মাঝখানে উল্লেখিত হয়।
  15. (حَاشَا) হাশা,
  16. (خَلَا) খালা,
  17. এবং (عَدَا) 'আদা। এই তিনটি একটি অর্থে ব্যবহৃত হয়।
    1. ইস্তিছনা এর জন্য ব্যবহৃত হয়। কেউ কেউ বলেছেন এগুলো তার পরবর্তি শব্দকে মাফ'ঊল হিসেবে নসব প্রদান করে। তখন এগুলো ফে'য়েল-এর রূপ ধারণ করে এবং তার মধ্যে লুকায়িত উহ্য জমীরটি (সর্বনাম) হয় তার ফা'য়িল (কর্তা)। এগুলোর শুরুতে مَا আসলে বা এগুলো বাক্যের শুরুতে আসলে আবশ্যিকভাবে ফে'য়েল-এ রূপান্তরিত হয়ে যায়।