রন্ধনপ্রণালী:ভাত

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন

বাংলাদেশী জনগোষ্ঠীর মধ্যে ভাত খুবই প্রিয় এবং বহুল প্রচলিত একটি খাবার। সাধারণত আমরা চাল সিদ্ধ করে ভাত রান্না করে থাকি। যদিও ভাত রন্ধনপ্রণালী খুবই সহজ তারপরও অনেকেরই পক্ষে সঠিক সময় ভাত রান্না করা সম্পন্ন করা সম্ভব হয় না। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছে যারা ভাত রান্না করতে পারে না। মূলত দুটি প্রক্রিয়ায় আমরা ভাত রান্না করে থাকি প্রথমত ভাতের চাল সিদ্ধ করার পর অতিরিক্ত পানি ফেলে দিয়ে, প্রচলিত ভাষায় যাকে সিদ্ধ ভাত বলা হয় এবং অপরটি হচ্ছে ভাতের চাল সমপরিমাণ পানি দিয়ে রান্না করে এ প্রক্রিয়ায় ভাত রান্না করার পর, অতিরিক্ত পানি ফেলে দেয়ার প্রয়োজন হয় না এটাকে আঞ্চলিক ভাষায় বলা হয় বসা ভাত সাধারণত বাংলাদেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে এ ধরনের ভাত রান্নার প্রচলন রয়েছে। তবে আধুনিক বিজ্ঞান বা আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের অথবা আধুনিক পুষ্টি বিজ্ঞানের মতে ভাত রান্নার পর অতিরিক্ত পানি ফেলে না দিয়ে পানি সহ ভাত রান্নায় বেশি পরিমাণ পুষ্টি পাওয়া যায়। বাংলাদেশ মধ্যাঞ্চলে যে প্রক্রিয়ায় ভাত রান্না করা হয় নিম্নে রন্ধন প্রক্রিয়া দেয়া হল।

প্রয়োজনীয় উপকরণ[সম্পাদনা]

  • চাল ৫০০ গ্রাম
  • পানি ১ কেজি
  • সোয়া কেজি ১ কেজি পরিমাপ ভাত ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন পাত্র
  • পাত্রের মাপ অনুযায়ী ঢাকনা

প্রস্তুত প্রণালী[সম্পাদনা]

প্রথমে নির্দিষ্ট পাত্রে পরিমাণমতো চাল নেওয়া লাগবে। তারপর পরিষ্কার স্বচ্ছ পানি দিয়ে চালটা ধুয়ে নেই। এবার ৫০০ গ্রাম পরিমাপ চালের জন্য ১০০০ গ্রাম বা ১ কেজি পানি সহযোগে সম্পূর্ণ আচে চুলায় বসিয়ে দেই। যদি চালটা নাজির শাহ বা লতা জাতীয় চাল হয় তাহলে এটা ১ম ভাপ আসার সাথে সাথে রান্না হয়ে যায়, কিন্তু যদি চালটা ইরি বা আমরা যেটাকে বলি মিনিকেট এই জাতীয় চাল হয় তাহলে তা ভাপ আসার পর আরো সাত মিনিট বা কিছু সময় বেশি ফুটাতে হয়, তবে লক্ষণীয় বিষয় হল আমরা একটা চাল তুলে দুই আঙুলের মাঝে চাপ দিয়ে পরীক্ষা করে ভাত রান্না হয়েছে বুঝতে পারি,এছাড়াও সচরাচর দেখা যায় ভাবটা রান্না হয়ে গেলে চালটা হাড়ির মধ্যে উপর নিচ করতে থাকে এতে করে বুঝা যায় ভাত রান্না হয়ে গেছে। ভাতটা ফুটে গেলে আমরা এটাকে তার নির্দিষ্ট ঢাকনা দিয়ে ঢেকে মার গালানো তিন পায়া ত্এরিকোণী ধারক টাতে কাত করে পানি ঝরিয়ে নেই, কিন্তু অনেকের পক্ষে এভাবে কাত করে পানি ঝরানো সম্ভব হয় না তাই আমরা খুব সহজে একটা চালনি তে ভাত ঢেলে দিয়ে খুব সহজে পানি ঝরিয়ে নিতে পারি, খেয়াল রাখতে হবে পানিটা সরে গেলে খুব দ্রুত গরম থাকা অবস্থায় চালনি থেকে অন্য কোথাও বা অন্য কোন পাত্রে স্থানান্তর করে নেব।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]