ফেব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং এর প্রাথমিক ধারনা/সকল পাতা

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
GF-08 b.JPG



ফেব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং বলতে কাপড় প্রক্রিয়াজাতকরন কে বুঝায়। সুতা তৈরির মিলগুলোতে সুতা তৈরি করার পরে সেই সুতাকে বিভিন্ন রকম প্রক্রিয়াজাত করা হয়। পরবর্তীতে শেষ ধাপে ব্যবহার উপযোগী কাপড় পাওয়া যায়। আর এই পুরো প্রক্রিয়াকে একত্র ফেব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং বলে।

আঁশ হতে বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় সুতা প্রস্তুত করার পর ঐ সুতা দ্বারা বয়ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে টানা ও পড়েন সুতার পরস্পর বন্ধনী দিয়ে, লুপের সাহায্য এবং আঁশকে জমাট বাঁধিয়ে মানুষের পরিধেয় ও প্রয়োজনীয় ব্যবহারের জন্য যে সকল দ্রব্য উৎপাদিত হয় তাকে কাপড় বলে। বয়ন কাপড়ের জন্য কমপক্ষে দুই সেট সুতার প্রয়োজন। একটিকে টানা সুতা এবং অপর সুতা কে পড়েন সুতা বলে।টানা সুতা উইভার্স বীমে জড়ানো থাকে এবং পড়েন সুতা মাকুর সাথে থাকে।এই টানা সুতা ঝাঁপের মাধ্যমে শেড সৃষ্টি করে ও শেডের মাধ্যমে পড়েন সুতা টানা সুতার সাথে বন্ধনী সৃষ্টি করে বয়ন কাপড় তৈরি করা হয়। যে প্রক্রিয়ায় মেশিন বা হাত দ্বারা এক ধরনের বিশেষ সুচ ব্যবহার করে বিশেষ নিয়মে লুপ তৈরি করে উক্ত লুপগুলোকে পরস্পর এর সাথে লম্বালম্বিভাবে অথবা সমান্তরালভাবে সংযোজিত করে কাপড় তৈরি করা হয়। আঁশকে তাপ,চাপ ও আঠালো পদার্থ এর মাধ্যমে জমাট বাঁধিয়ে কাপড় তৈরি করা যায়। কাপড় কে প্রধানত তিন ভাগে ভাগ করা যায়:-

  1. বয়ন কাপড়
  2. নন ওভেন কাপড়
  3. নিটেড কাপড়

ওয়াইন্ডিং শব্দের অর্থ জড়ানো।সুতা প্রস্তুত করার পরে কাপড় তৈরি করার কাজে সরাসরি তাঁতে ব্যবহার করা যায় না।তাঁতে সুতা ব্যবহার করার জন্য কতগুলো কাজ করতে হয়।কাপড় বুননের সুবিধার জন্য বাজারে প্রাপ্ত হ্যাংক আকারের সুতার মধ্যে বিভিন্ন ত্রুটিসমূহ থাকে,ফলে ত্রুটি থেকে মুক্ত করে গতানুগতিক তাঁতের কাপড়ের পড়েন সুতার নলি অথবা কপ এবং টানার জন্য সুতাকে স্পুল,কৌন,ববিন ইত্যাদি প্যাকেজ এ জড়ানো হয়।বিভিন্ন প্যাকেজে সুতা জড়ানোর পদ্ধতিকে বলা হয় ওয়াইন্ডিং। ওয়াইন্ডিং কে তিন ভাগে ভাগ করা যায়:-

  1. সমান্তরাল ওয়াইন্ডিং
  2. প্রায় সমান্তরাল ওয়াইন্ডিং
  3. আড়াআড়ি ওয়াইন্ডিং

মূলত দুই ধরনের উদ্দেশ্য ওয়াইন্ডিং বা জড়ানো হয় :-

  1. টানা জড়ানে
  2. পড়েন জড়ানো