উইকিশৈশব:বিড়ালের বড় প্রজাতি/চিতা

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
একসঙ্গে দুটি চিতা।

চিতারা বাস্তবিক তাদের গতির জন্যই তৈরি, তাদের মেরুদণ্ড চাবুকের মত, লম্বা লম্বা পা, আর তার সঙ্গে লম্বা লেজ বাঁক ঘুরবার সময় রেডারের মত কাজ করে। ডাঙার প্রাণীদের মধ্যে দ্রুততম প্রাণী চিতাকে শিকার ধরার সময় ২৭৪ মিটার দীর্ঘ পথ ১১৪ কিলোমিটার বেগে ছুটেছে- এমন দেখা গেছে। সাধারণত মানুষ পুরুষ "চিতাবাঘকে" চিতার শ্রেণীতে রাখলেও এর স্ত্রীলিঙ্গকে এই শ্রেণীতে অন্তর্ভুক্ত করতে অপছন্দ করে। একটা চিতা ৭ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারে।

চিতারা কোথায় বাস করে?[সম্পাদনা]

চিতাদের বাসস্থান সবুজ রঙে দেখানো হয়েছে।

বর্তমানে বেশিরভাগ চিতা সাব-সাহারান অঞ্চলে বসবাস করে। তবে ইরানেও কিছু চিতা প্রজাতি দেখতে পাওয়া যায়। অতীতে উত্তর-ভারত এবং ইরানে বেশি চিতা দেখা যেত। তারা কিছুটা মরুভূমি, নিষ্পাদপ প্রান্তর, বৃক্ষহীন তৃণভূমি, ঘন ঝোপ ইত্যাদি অঞ্চলে বসবাস করতে পছন্দ করে। তারা ঘন বনাঞ্চলে থাকা পছন্দ করে না। কারণ শিকার ধরতে তাদের গতির ওপর নির্ভর করতে হয়। ভারতে যে সমস্ত বনে চিতারা বসবাস করে,তা মোটেও নিরাপদ নিয়। চিতারা প্রায়শই বনের সংলগ্ন গ্রাম বা শহরে চলে আসে। গত ২-৩ বছরের মধ্যে চিতাদের বেশ কয়েকবার জনপদে দেখা গেছে।

চিতাদের দেখতে কাদের মত?[সম্পাদনা]

শিকারী হিসাবে চিতাকে ব্যবহার করা হচ্ছে, পারস্য, ১৫৬০

চিতা মধ্যম আকারের কুকুরের মত লম্বা আকৃতির হয় এবং গায়ে বিড়ালের মত দাগ থাকে। এদের পা লম্বা ও সরু। তবে দেহে অনেক শক্তিশালী পেশী থাকে যা তাদের শিকারে সহায়তা করে। চিতার পেট সাদা রঙের এবং কালো ডোরা থাকে। চিতাবাঘের দেহে যেমন পামেট আকৃতির দাগ থাকে চিতার তেমন থাকে না। চিতার দেহে গোলাকার কালো দাগ থাকে। একটি প্রাপ্তবয়স্ক চিতার ওজন ৯০ থেকে ১৪০ পাউন্ড (৪০-৬৫ কেজি) এবং দৈর্ঘ্যে প্রায় ৪ থেকে ৫ ফুট (১১২-১৩৫ সেমি) হয়।

তারা কি খায় এবং কিভাবে শিকার ধরে?[সম্পাদনা]

চিতাবাঘগুলি বেশিরভাগ স্তন্যপায়ী প্রাণী যেমন গাজেলস প্রাগলা গুন বাছুর এবং শেয়ার যা প্রায় একই আকার বা প্রাপ্তবয়স্ক চিতাহানার তুলনায় ছোট। পায়ের গঠনের জন্য চিতারা খুব জোরে ছুটতে পারে।

মজার ঘটনা[সম্পাদনা]

দেখে নিন, দ্রুততম প্রাণী সম্পর্কে আপনার জ্ঞান কতটুকু:

  • পূর্ণ ক্ষমতার এক-একটি দৌড়ের পরে চিতা অন্তত ১৫ মিনিট বিশ্রাম করে।
  • চিতাবাঘ গর্জন করেনা। কিন্তু, তারা অত্যন্ত চিকন প্রকৃতির (un-catlike) আওয়াজ করে। অনেকে তাদের আওয়াজকে পাখির ডাক বলে ভুল বোঝেন।
  • সাধারণভাবে চিতারা শিকারের চামড়া বা হাড় খায় না।
  • চিতা যা শিকার করে তা অনেক সময়ে হায়না বা সিংহ চুরি করে নেয়।

আরও তথ্যের জন্য[সম্পাদনা]

পরবর্তী বিষয়: পিউমা