উইকিশৈশব:ছবিতে বিশ্বের ইতিহাস/প্রাচীন মিশরীয়

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
Nile River and delta from orbit.jpg

প্রাচীন মিশরীয়রা নীল নদের ধারে বাস করত। উপরের চিত্রে নীল নদ দেখানো হয়েছে। এটি আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশ সহ মিশরের মধ্য দিয়েও বয়ে গেছে। নদীর সান্নিধ্যে থাকার ব্যাপারটি কোন কাকতালীয় ঘটনা ছিল না। অতীতে এই নদীটি প্রতি বছর প্লাবিত হত এবং তীরবর্তী জমিকে উর্বর করে তুলত যা ফসল ফলানোর জন্য সহায়ক ভূমিকা পালন করত। এর অর্থ হলো আশেপাশের বেশিরভাগ জমি মরুময় এবং বসবাসের অনুপযোগী হলেও সেখানে জল ছিল।

La Tombe de Horemheb cropped.jpg

প্রাচীন মিশরীয়দের অনেক দেবতা ছিল। তাদের মধ্যে তিনজনকে উপরের চিত্রে দেখানো হয়েছে। এদের মধ্যে ওসাইরিস হলেন জীবন, মৃত্যু এবং ঊর্বরতার দেবতা যার বর্ণ সবুজ। আনুবিসের মাথা ক্যানাইন জাতীয় প্রাণীর (অর্থাৎ সারমেয় বা শৃগালের মতো) এবং হোরাসের মাথাটি পাখির। মিশরীয়রা এই দেবতাদের পূজা করত এবং তাদের জন্য মন্দির নির্মাণ করেছিল। তারা বিশ্বাস করত যে এই দেবতারা তাদের ভক্তির বিনিময়ে তাদের সাহায্য করবেন। তারা আরও কয়েকজন দেবতার পূজা করত যারা মৃত্যু, আলো, রাত, গর্ভাবস্থা, যুদ্ধ এবং বন্যায় সাহায্য করতেন বলে তাদের বিশ্বাস ছিল।

Opening of the mouth ceremony (cropped).jpg

প্রাচীন মিশরীয়রা পরকালে বিশ্বাস করত। সেখানে পৌঁছার উদ্দেশ্যে তারা একটি সুবিস্তৃত এবং সতর্ক পদ্ধতি পালন করত। প্রথমত, বিশেষ করে মৃত ব্যক্তিটি যদি খুব গুরুত্বপূর্ণ হয় তাহলে মানুষ শোক করবে। অতঃপর শরীরটি বিভিন্ন দ্রব্য দ্বারা সংরক্ষিত করে মমিতে রূপান্তর করা হবে যাতে এটি পঁচে না যায়। Processions, and re-enactments of myths were carried out.টেমপ্লেট:বঙ্গানুবাদ প্রয়োজন

প্রাচীন মিশরীয়রা গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু স্মৃতিচিহ্ন নির্মাণ করেছিল যার অনেকগুলি আজও টিকে আছে।

প্রাচীন মিশরীয়রা দক্ষ কারিগর এবং শিল্পী ছিল। তাদের অনেক কাজকে আজও অত্যন্ত সম্মানজনক গণ্য করা হয়।