উইকিশৈশব:বিচিত্র ধর্মমত/শিন্তৌ ধর্ম

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এটি একটি "টোরি", যা কোনো শিন্তৌ মন্দির বা স্থাপত্যের দরজার প্রতীক

কতজন মানুষ শিন্তৌধর্ম অনুসরণ করেন?[সম্পাদনা]

জাপানের অনেক লোক শিন্তৌধর্মৈর আচার-অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে, কিন্তু তাদের মধ্যে অনেকেই অন্য কোনো ধর্ম পালন করে থাকেন। আপনি যদি জাপানের লোকদের তাদের ধর্ম সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেন, অনেকেই বলবে তাদের ধর্ম নেই। প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ মানুষ আসলে একটি শিন্তৌ সম্প্রদায়ের অন্তর্গত যার প্রায় পুরোটাই জাপানে। জাপানের জনসংখ্যার প্রায় ৭০-৮০ শতাংশ শিন্তৌবাদে অংশগ্রহণ করেন, যা জাপানে ৯ থেকে ১০ কোটি।

শিন্তৌধর্ম কোথায় পালন করা হয়?[সম্পাদনা]

জাপান। বেশ সংখ্যক জাপানি রয়েছে এমন দেশগুলিতেও শিন্তৌধর্ম চর্চা করা হয়।

শিন্তৌদের মূল বিশ্বাস কী?[সম্পাদনা]

শিন্তৌরা "কামি"তে বিশ্বাস করেন, এটি একটি ঐশ্বরিক শক্তি যা সব কিছুতেই পাওয়া যায়। শিন্তৌরা বহুদেবতাবাদী কারণ এরা অনেক দেবতার অস্তিস্ত্ব বিশ্বাস করে এবং প্রকৃতিবাদী কারণ এটি প্রাণী এবং প্রাকৃতিক বস্তুর মতো জিনিসগুলিকে দেবতা হিসাবে দেখে।

শিন্তৌদের পবিত্র গ্রন্থ কি কি?[সম্পাদনা]

শিন্তৌদের পবিত্র গ্রন্থ দুটি হলো কোজিকি এবং নিহোনগি।

শিন্তৌ ধর্মপালনকারীদের পবিত্র দিন কী কী?[সম্পাদনা]

সেৎসুবুন - ২ বা ৩ ফেব্রুয়ারি, প্রাচীন চান্দ্র পঞ্জিকা অনুযায়ী বসন্তের প্রথম দিন, হিনা মাৎসুরি - ৩ মার্চ, গৌতম বুদ্ধের জন্মদিন - ৮ এপ্রিল, শিশু উৎসব - ৫ মে, তানাবাতা মাৎসুরি - ৭ জুলাই, বোন - সপ্তম চান্দ্রমাসের মাঝামাঝি ১৩ থেকে ১৫ জুলাই, শিচিগোসান - ১৫ নভেম্বর, নতুন বছর - ৩১ ডিসেম্বর।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]