উইকিশৈশব:বিচিত্র ধর্মমত/জরাথুস্ট্রবাদ

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
Faravahar-Gold.svg

জরাথুস্ট্রবাদ বিশ্বের প্রাচীনতম ধর্মগুলির মধ্যে একটি।

কতজন মানুষ জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণ করেন?[সম্পাদনা]

বিশ্বে জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীদের সঠিক সংখ্যা জানা নেই, তবে ১,২৪,০০০ থেকে ২৬ লক্ষের মতো হতে পারে।[১]

কোথায় জরাথুস্ট্রবাদ চর্চা করা হয়?[সম্পাদনা]

জরাথুস্ট্রবাদ মধ্য এশিয়ার ইরান দেশ থেকে এসেছে। খ্রিস্টীয় সপ্তম শতাব্দী পর্যন্ত এটিই ছিল ইরানের প্রধান ধর্ম। পরে ইরান আরবরা আক্রমণ করে ও ইরানের বেশিরভাগ মানুষকে নতুন ধর্ম ইসলামে রূপান্তরিত করা শুরু করে। ইরানে আজও জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারী একটি ছোট সম্প্রদায় রয়েছে, তবে বেশিরভাগ অনুসরণকারীরা এখন ভারতে বাস করেন। ভারতের বেশিরভাগ জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীরা একটিই জাতিগোষ্ঠীর অংশ, যারা ইরানিদের থেকে এসেছে, এদেরকে 'পারসিক বলা হয়। তারা বর্তমানে একটি ভারতীয় ভাষা গুজরাটি ভাষায় কথা বলেন এবং প্রধানত মুম্বাইতে বসবাস করে।

জরাথুস্ট্রবাদের বিশ্বাস গুলি কি কি?[সম্পাদনা]

অগ্নি মন্দির জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীদের পবিত্র অগ্নি

জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীরা এক ঈশ্বরে বিশ্বাস করে, যাকে বলা হয় আহুরা মাজদা (জরাথুষ্ট্রীয়দের পবিত্র ভাষা আভেস্তানে যার অর্থ "জ্ঞানী প্রভু")। আহুরা মাজদা মন্দ আত্মা, মন্দ, ধ্বংস এবং মিথ্যার রাজপুত্র আহরিমান (বা আংরা মাইন্যু) এর সাথে দ্বন্দ্বে থাকেন। প্রতিটি মানুষ আহুরা মাজদা বা আহরিমানকে অনুসরণ করার নিজস্ব স্বাধীনতা রয়েছে। ধর্মমতে শেষ পর্যন্ত, আহরিমান পরাজিত হবে, এবং প্রতিটি মানুষের বিচার করা হবে, এবং স্বর্গ বা নরকে পাঠানো হবে।

জরাথুস্ট্রবাদের মূলমন্ত্র হল "ভাল চিন্তা, ভাল কথা, ভাল কাজ"।

জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীরা বিশ্বাস করে যে জল এবং আগুন পবিত্র এবং বিশুদ্ধ। তাদের মন্দিরগুলিকে অগ্নি মন্দির বলা হয়। তারা পবিত্র অগ্নিকুণ্ডে নৈবেদ্য উপস্থাপন করেন, যা প্রত্যহ পুরোহিতদের দ্বারা পরিচর্যা করা হয়।

জরাথুস্ট্রবাদের পবিত্র গ্রন্থ কী?[সম্পাদনা]

জরাথুস্ট্রবাদের প্রধান পবিত্র পাঠকে বলা হয় আবেস্তা, যাতে রয়েছে তাদের ধর্মপ্রবক্তা জরাথুস্ট্রের শিক্ষা।

জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীদের পবিত্র দিনগুলি কি কি?[সম্পাদনা]

জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীদের অনেক আচার-অনুষ্ঠান রয়েছে। তাদের সবচেয়ে পবিত্র দিনগুলির মধ্যে একটি হল নওরোজ, বা পারসিক পঞ্জিকায় নববর্ষের দিন।

জরাথুস্ট্রবাদের ইতিহাস কি?[সম্পাদনা]

জরাথুস্ট্রবাদ বিশ্বের প্রাচীনতম ধর্মগুলির মধ্যে একটি। এটি জরাথুস্ট্র নামের একজন ব্যক্তির শিক্ষার উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। অধিকাংশ পণ্ডিত মনে করেন তিনি খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতাব্দীতে বাস করতেন। আবার কেউ কেউ বিশ্বাস করেন যে তিনি খ্রিস্টপূর্ব দশম শতকেরও অনেক আগে জীবিত ছিলেন। প্রাচীন পারসিকরা তার বিশ্বাসকে গ্রহণ করেছিলেন এবং মুসলিম আরবদের পারস্য আক্রমণের আগ পর্যন্ত জরাথুস্ট্রবাদ পারস্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধর্ম হয়ে ওঠে।

কিছু বিখ্যাত জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারী[সম্পাদনা]

সাইরাস দ্য গ্রেট

সবচেয়ে বিখ্যাত সমসাময়িক জরাথুস্ট্রবাদ অনুসরণকারীদের মধ্যে একজন ছিলেন ব্রিটিশ রক ব্যান্ড কুইনের প্রধান গায়ক ফ্রেডি মার্কারি। তিনি আফ্রিকার একটি দ্বীপ দেশ জানজিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। এটি তখন ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অংশ ছিল এবং বর্তমানে তানজানিয়ার অংশ। তার পরিবার ভারত থেকে আগত জরাথুস্ট্রবাদী পারসিক ছিল। ভারতের অন্যতম বিখ্যাত প্রস্তুতকারক সংস্থা টাটা কোম্পানির কর্ণধার জামসেদজী টাটা একজন পারসিক ছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.adherents.com/Religions_By_Adherents.html