কর্মী বিনিময় কর্মসূচী

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কর্মী বিনিময় কর্মসূচী
তথ্যকর্মী পারস্পরিক শিখনের একটি চর্চা


সম্পাদক: মাহমুদ হাসান


তথ্যকর্মী বিনিময় কর্মসূচীর অংশগ্রহণকারী

বাংলাদেশ গত এক দশকেরও বেশী সময় ধরে টেলিসেন্টার কিংবা তথ্যকেন্দ্র কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত। ধরণের ভিন্নতা, ব্যবসায়িক মডেল, পরিচালনা পদ্ধতি, মালিকানা, স্থান ইত্যাদি বিষয়গুলো একটি কেন্দ্র থেকে অন্যটিকে অনবদ্য করে তুলেছে। বিভিন্ন গবেষণা ও অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে যে, তথ্যকেন্দ্রে কর্মরত তথ্যকর্মীর দক্ষতা ও ধারণার স্বচ্ছতা একটি তথ্যকেন্দ্রের সফলতার সবচেয়ে বড় নিয়ামক। তথ্যকেন্দ্র পরিচালিত এলাকার জনগণের আচরণ এবং তথ্যকেন্দ্রের কার্যক্রম সম্পর্কে তথ্যকর্মীর জ্ঞান তথ্যকেন্দ্র পরিচালনার কেন্দ্রবিন্দু। খুব সাধারণ কম্পিটার পরিচালনা থেকে শুরু করে ব্যাপক টেলিমেডিসিন সেবার মতো জটিল বিষয়গুলো একজন তথ্যকর্মীর মাধ্যমেই কাঙ্খিত জনগোষ্ঠীর কাছে পৌঁছে। একজন তথ্যকর্মীকে এলাকার জনগণের তথ্য ও জ্ঞান চাহিদা পূরণসহ নানামূখী সেবা প্রদান করতে হয়। আর তাই তথ্যকর্মীর যোগ্যতা ও দক্ষতার উন্নয়ন তথ্যকেন্দ্র পরিচালনা প্রতিষ্ঠানের জন্য সবচেয়ে অগ্রাধিকার বিষয়।

বাংলাদেশে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের তথ্যকেন্দ্র পরিচালনার নিজস্ব প্রক্রিয়া রয়েছে; রয়েছে নিজস্ব প্রশিক্ষণ কর্মসূচী। এসকল প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে তথ্য প্রযুক্তির পরিচিতি, তথ্যে প্রবেশাধিকার, ইন্টারনেট ও ইমেইল পরিচালনা, সামাজিক সচেতনতা, ব্যবসায়িক মডেল ইত্যাদি। কিন্তু বাস্তব প্রশিক্ষণ ক্ষেত্র হলো তথ্যকর্মীর কর্মএলাকা। কারন প্রতিটি এলাকার রয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতি, চর্চা এবং নানা মাত্রিক তথ্যচাহিদা। বাংলাদেশের প্রতিটি এলাকার চরিত্রের ভিন্নতার সাথে খাঁপ খাইয়ে একটি সর্বজনগ্রাহ্য প্রশিক্ষণ পরিচালনা করা প্রায় অসম্ভব। আর তাই মূল প্রশিক্ষণের সাথে কাজ করতে করতে শেখার এক সংমিশ্রণ প্রয়োজন। বিভিন্ন তথ্যকেন্দ্রের তথ্যকর্মীর কর্মএলাকায় অর্জিত অভিজ্ঞতাকে একটি পারস্পরিক শিখন চর্চার মধ্যে নিয়ে আসারা লক্ষ্য নিয়েই বাংলাদেশ টেলিসেন্টার নেটওয়ার্ক ‘‘কর্মী বিনিময় কর্মসূচী” শুরু করে।

প্রদায়ক[সম্পাদনা]

সূচিপত্র[সম্পাদনা]