উইকিশৈশব:রাসায়নিক মৌল/সোনা (গোল্ড)

উইকিবই থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
পর্যায়ক্রমিক চার্টে সোনা (গোল্ড)-এর অবস্থান।
পর্যায় সারণিতে সোনা (গোল্ড)-এর প্রতীক
৮০০ বছরের পুরানো একটি ফরাসি চালিস (কাপ)। কাপটি দেখলে বোঝা যায় অনেক উপায়ে সোনার উপর কাজ করা যেতে পারে।

ধাতুটি দেখতে, স্পর্শে, স্বাদে, অথবা গন্ধে কেমন লাগে?[সম্পাদনা]

সোনা একটি হলুদ রঙের মূল্যবান ধাতু। এই ধাতুটি নিজস্ব সৌন্দর্য এবং উজ্জ্বলতার জন্য মূল্যবান। অন্য অনেক ধাতুর চেয়ে সোনা নরম। আগুন বা তাপ ছাড়াই শুধুমাত্র সাধারণ সরঞ্জাম ব্যবহার করে ধাতুটিকে বিভিন্ন আকার দেওয়া যায়। প্রাচীনকাল থেকেই সোনা প্রকৃতিতে মুক্ত অবস্থায় পাওয়া যেত এবং ধাতুটি নিয়ে কাজ করা সহজ বলে, এটি মানুষের দ্বারা ব্যবহৃত প্রথম ধাতু বলে মনে করা হয়। ধাতুটি হাজার হাজার বছর ধরে মুদ্রা এবং গয়না তৈরিতে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আজও এটি গয়না তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। সোনা একটি বিরল মুল্যবান ধাতু বলে, এটিকে সম্পদের প্রতীক হিসাবে ধরা হয়। ধাতুটি কম্পিউটারের মতো ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশেও ব্যবহৃত হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]